স্টিফেন ক্রেন | মুম রহমান

স্টিফেন ক্রেন | মুম রহমান

🌱

মার্কিন কবি, উপন্যাসিক, ছোটগল্পকার স্টিফেন ক্রেন ১৯০০ সালে মারা যান। কিন্তু ২৮ বছরের ছোট্ট জীবনে অনেক কাজ করেছেন। মাত্র ৪ বছর বয়সে তিনি লেখা শুরু করেন, ১৬ বছর বয়সেই তার একাধিক লেখা প্রকাশিত হয়েছে। তার প্রথম উপন্যাস ‘ম্যাগি: আ গিফট অব দ্য স্ট্রিট’-কে মার্কিন সাহিত্যের প্রথম ন্যাচারালিজমের কাজ হিসাবে গণ্য করা হয়। আমেরিকার গৃহযুদ্ধের উপর লেখা ‘দ্য রেড ব্যাজ অফ দ্য স্ট্রিটস’ ক্লাসিকের মর্যাদা পায়। তার লেখা বিশ শতকের মার্কিন লেখকদের প্রভাবিত করে। তার প্রভাব থেকে আর্নেস্ট হেমিংওয়ের মতো লেখকও দূরে থাকতে পারেননি। শুরুতে পত্রিকার সংবাদ প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করলেও একটা সময় তিনি পূর্ণকালীন লেখক হিসাবেই জীবিকা নির্বাহ করেছিলেন। 

 

সমুদ্রের রাজা

সমুদ্র একদা আমাকে বললো,

‘দেখো!

ওইখানে সৈকতে

এক নারী, কাঁদছে।

আমি তাকে দেখেছি।

তুমি যাও আর তাকে বলো

তার প্রেমিককে আমি শায়িত রেখেছি

শান্ত সবুজ বড় কক্ষে।

সেখানে আছে সোনালী বালুকণার ঐশ্বর্য

আর স্তম্ভ, লোহিত-প্রবালের;

দুটি শ্বেত মাছ প্রহরী হয়ে আছে তার শবাধারের।

 

তাকে এই বলো

আরো বলো

সমুদ্রের রাজা 

সেও কাঁদে, বুড়ো, অসহায় লোক।

ব্যস্তবাগীস নিয়তিরা

তার হাত ভরে দেয় মৃতদেহে

যতোক্ষণ না সে সেই শিশুর মতো দাঁড়িয়ে থাকে

যার হাত ভর্তি উদ্বৃত্ত খেলনা।’ 

 

সেথায় এক জমি ছিলো যেখানে কোন ফুল থাকতো না

সেথায় এক জমি ছিলো যেখানে কোন ফুল থাকতো না।

এক পরিব্রাজক ততক্ষনাৎ জানতে চেয়েছিলো : ‘কেন?’

লোকেরা তাকে বলেছিলো : 

‘একদা এই অ লের ফুলেরা এমন বলেছিলো :

‘যতোক্ষণ না কোন নারী স্বেচ্ছায় তার প্রেমিককে দেবে

অন্য নারীর কাছে

ততক্ষণ আমরা রক্তাক্ত লড়াই করে যাবো।’

বিষাদে লোকেরা আরো যোগ করলো :

‘এখানে কোন ফুল নেই এখন।’

যদি কোথাও আমার ছোট্ট জীবনের সাক্ষ্য থেকে থাকে

 

যদি কোথাও আমার ছোট্ট জীবনের সাক্ষ্য থেকে থাকে,

আমার বেদনা আর যন্ত্রণার;

তিনি দেখবেন একজন বেকুবকে

আর দেবতাদের পক্ষে বেকুবদের শাসানো সহজ নয়। 

 

🔅🔅🔅🔅🔅🔅🔅

অনুধ্যান

Leave a Reply

Next Post

ঘড়ি বৃত্তান্ত | তপন রায়

Fri Sep 4 , 2020
ঘড়ি বৃত্তান্ত | তপন রায় 🌱 এখন সকাল সাতটা বেজে বাইশ মিনিট। মুঠোফোনের ডিসপ্লে থেকে আমি সময়টা দেখে নিলাম। হাতঘড়ি, টেবিলঘড়ি বা দেয়ালঘড়ির জায়গা তাে এখন মুঠোফোনের কব্জায়। হাতঘড়ি, প্রায় ব্রাত্যই বলা চলে। তবু ঘড়ি ব্যাপারটা থেকেই যাচ্ছে শেষ পর্যন্ত। শারীরিক আর মানসিক অভ্যাসের ভিতর বহুদূর পর্যন্ত সেঁধিয়ে গিয়ে কেবলই […]
Shares