এজরা পাউন্ড | মুম রহমান

এজরা পাউন্ড | মুম রহমান

🌱

এজরা ওয়েস্টন লুমিস পাউন্ড সবার কাছে এজরা পাউন্ড নামেই পরিচিত। আধুনিক মার্কিন কাব্য ও সমালোচনা জগতে তিনি সুপরিচিত। বিংশ শতাব্দীর সাহিত্যে আধুনিকতাবাদ ও চিত্রবাদ আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃত তিনি। মূলত চীনা ও জাপানীদের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে তারা কম কথায় অধিক স্বচ্ছ ও স্বচ্ছল চিত্রময়তা তুলে ধরতেন। রিপোস্টেস, হিউ সেলেন মালবেরি, দ্য ক্যান্টস তার অন্যতম সেরা কাজ বলে বিবেচিত।

একটি বালিকা

গাছটি আমার হাতে ঢুকে গেছে,
আমার বাহু বেয়ে গড়াচ্ছে রস,
গাছটি বেড়েছে আমারই স্তনে –
নিম্নাভিমুখী,
শাখারা আমার বাইরে গজিয়েছে, বাহুর মতোই।

তুমি গাছ,
তুমি শ্যাওলা,
তার উপরের হাওয়ার তুমি ভায়োলেট।
একটি শিশু – এতো উঁচুতে – তুমি আছো,
এবং এই সবকিছুই জগতের কাছে ঝকমারি।

একটি চুক্তি

তোমার সঙ্গে আমি একটা চুক্তি করছি, ওয়াল্ট হুইটম্যান
আমি যথেষ্ট দীর্ঘকাল তোমাকে অভক্তি করেছি।
আমি তোমার কাছে এসেছি পরিণত শিশু হিসেবে
যার আছে নির্বোধ-একগুয়ে পিতা;
বন্ধু বানানোর বিবেচনায় আমি যথেষ্ট বয়স্ক।
আদতে তুমিই নতুন কাঠ ভেঙে এনেছিলে,
এখন সময় সেগুলোকে খোদাই করার।
আমাদের আছে একটি সরস কাঠ আর একটি শিকড়
চলো আমাদের মাঝে আদান-প্রদান শুরু হয়ে যাক।

মেট্রোর স্টেশনে

ভিড়ের মধ্যে এইসব মুখের আবির্ভাব;
ভেজা কালো বৃক্ষশাখায় পুষ্পদল।
প্রত্যাবর্তন

দেখো, ওরা ফিরছে, আহ, সম্ভাব্য
গতি, আর মন্থর চরণ,
চলনে সমস্যা আর অনিশ্চিত
দোদুল্যমানতা।

দেখো, ওরা ফিরছে, একের পর এক,
ভয়ে, যেন অর্ধ-জাগরিত;
যেন তুষারের দ্বিধান্বিত হওয়া উচিত
আর বাতাসের মর্মম,
আর অর্ধেক ঘুরে আসে;
উহারা ছিলো ‘ডানাঅলা-সম্ভ্রম’,
অলঙ্ঘ্য।

ডানাঅলা জুতার দেবতারা!
তাদের সাথে আছে রূপালী লূব্ধকেরা,
বাতাসের তল্লাশ করছে আঘ্রাণে!

এই! এই!
এরা ছিলো দ্রুত লুণ্ঠনকারী;
এরা প্রখর-সুবাসিত;
এরা ছিলো আত্মার শোণিত।

বাঁধন হাল্কা করো,
ম্লান করো শৃঙ্খল-মানব!

অনুধ্যান

Leave a Reply

Next Post

জয়েস কিলমার | মুম রহমান

Thu Sep 17 , 2020
জয়েস কিলমার | মুম রহমান 🌱 মার্কিন কবি কিলমারের কবিতায় প্রকৃতির সৌন্দর্যের পাশাপাশি রোমান ক্যাথলিক ধর্মীয় বোধও কাজ করে। একাধারে সাংবাদিক, সমালোচক, শিক্ষক, সম্পাদক জয়েস কিলমারের অধিক কাজের সঙ্গে আমরা পরিচিত নই। কিন্তু তার কিছু কিছু কবিতা ঘুরে ফিরে বিশ্বের প্রায় সকল কাব্যসংকলনেই ঠাঁই পায়। বিশ্বব্যাপী এই একটি ছোটকবিতার জন্য […]